Print
প্রচ্ছদ » খেলাধুলা

ঢাকা, ০১ জানুয়ারি ২০১৮:

রাজশাহীতে জাতীয় লিগ চলার সময় এক কিশোর দর্শককে পিটিয়েছেন সাব্বির রহমান। শুধু তাই নয়, এই ঘটনার শুনানির সময় ম্যাচ রেফারির সঙ্গেও খারাপ ব্যবহার করেছেন। এ ঘটনায় বড় শাস্তিই পাচ্ছেন জাতীয় দলের এই ব্যাটসম্যান, সেটি আগেই আচ করা গিয়েছিল। অবশেষে তাই হলো।

সোমবার (১ জানুয়ারি) বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) শৃঙ্খলা কমিটির সভায় এ বিষয়ে কঠোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সাব্বির রহমানকে বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ দেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। পাশাপাশি ২০ লাখ টাকা জরিমানার সুপারিশ করা হয়েছে। অবশ্য এসব সিদ্ধান্ত বিসিবির পরবর্তী বোর্ড সভায় পাস হবে। সভা শেষে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান এসব তথ্য জানিয়েছেন।

এখানেই শেষ নয়। আগামী ছয় মাস ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে পারবেন না সাব্বির। ঘরোয়া ক্রিকেট বলতে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ এবং ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে খেলতে পারবেন না সাব্বির। ভবিষ্যতে এ ধরনের অপরাধ করলে আজীবন জন্য নিষিদ্ধ করা হতে পারে বলে কড়া হুশিয়ারিও দেয়া হয়েছে। তবে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়লেও জাতীয় দলের হয়ে খেলায় কোনো বাধা নেই সাব্বিরের।

এদিন তামিম ইকবালকে জরিমানা করা হয়েছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পঞ্চম আসরে উইকেটের সমালোচনা করেছিলেন তিনি। এ ঞটনায় জাতীয় দলের এ ওপেনারকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছে বিসিবি। গত ১৪ ডিসেম্বর শুনানির পর আজ এ তথ্য জানান নাজমুল হাসান।

নাজমুল হানান বলেন, ‘তার (সাব্বির) শুনানি হয়েছে আজ। আমাদের যে শৃঙ্খলা কমিটি আছে তাদের সুপারিশ অনুযায়ী, সে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছে। কেন্দ্রীয় চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়ের অনেক টাকা পায়। কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা খেলোয়াড়ের সংখ্যা খুব বেশি নেই। এর সঙ্গে আছে ২০ লাখ টাকা জরিমানা। ঘরোয়া ক্রিকেটে ছয় মাস খেলতে পারব না। তার মানে সে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগও খেলতে পারবে না। বিপুল অঙ্কের জরিমানা। সামনে বোর্ড সভায় সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হবে।’