Print
প্রচ্ছদ » খেলাধুলা

সিলেট আর ঢাকার দুরত্ব বুঝাল সাকিবরা

ঢাকা, ১১ নভেম্বর ২০১৭:

সিলেট থেকে ঢাকা কত দুর সেটি হাড়ে হাড়ে টের পেল নাসির হোসেনের সিলেট সিক্সার্স। আর সেই ব্যবধান বুঝিয়ে দিল সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস। সিলেট পর্বে ঘরের মাঠে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের নাকানি-চুবানি খাইয়ে ছিল সুরমা পাড়ের দলটি। এবার তারই বদলা নিয়েছে স্বাগিতকরা।

শনিবার (১১ নভেম্বর) মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে ৩৩ রানে পাঁচ উইকেট হারানো সত্বেও আবুল হাসান এবং তাইজুল ইসলামের ধৈর্যশীল ব্যাটে শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেট হারিয়ে ১০১ রান সংগ্রহ করে সিলেট সিক্সার্স। জবাবে শহিদ আফ্রিদির মারকাটারি ব্যাটিংয়ে ভর করে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে সহজ জয় তুলে নেয় ঢাকা ডায়নামাইটস।

তুলনামুলক সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে স্বাগতিক দলকে দারুণ সূচনা এনে দেন শহিদ আফ্রিদি ও এভিন লুইস। মাত্র ২৩ বলেই ৫০ রান পূর্ণ করে ওপেনিং জুটি। তবে পঞ্চম ওভারের প্রথম বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে আউট হন আফ্রিদি। ৫টি ছক্কা ও ১টি চারে ১৭ বলে ৩৭ রান করেন তিনি। আফ্রিদিকে শিকার করার পরের ডেলিভারিতেই তিন নম্বরে নামা দক্ষিণ আফ্রিকার ক্যামেরন ডেলপোর্টকে শুন্য রানে বিদায় দেন সিলেটের ইংলিশ মিডিয়াম পেসার টিম ব্রেসনান।

এরপর লুইসের সাথে তৃতীয় উইকেটে জুটি বেঁধে ৭৩ বল বাকী থাকতেই ঢাকার জয় নিশ্চিত করেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ২টি চার ও ৫টি ছক্কায় ১৮ বলে অপরাজিত ৪৪ রান করেন লুইস। ১১ বলে ১৮ রানে অপরাজিত থাকেন সাকিব। ম্যাচ সেরার পুরষ্কার জেতেন পাকিস্তানি শহীদ আফ্রিদি।

এর আগে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন সিলেট সিক্সার্সের অধিনায়ক নাসির হোসেন। ব্যাট করতে নেমে এদিনর ঢাকার বোলারদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি সিলেটের ব্যাটসম্যানরা। ইনিংসের ৬ষ্ঠ্য ওভারে মাত্র ৩৩ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারায় সিলেট সিক্সার্স।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে ফিরে যান আগের তিনম্যাচের হাফ সেঞ্চুরিয়ান উপল থারাঙ্গা। তৃতীয় ওভারে সাব্বির রহমান, চতুর্থ ওভারে দানুসকা গুনথিলাকা, পঞ্চম ওভারে রস হুইটলি, ৬ষ্ঠ্য ওভারে অধিনায়ক নাসির হোসেন ও দশম ওভারে সাঝঘরে ফেরেন ওয়ানিদু হাসারাঙ্গা। শেষ পর্যন্ত আবুল হাসান এবং তাইজুল ইসলামের প্রতিরোধে সম্মান রক্ষা হয় সিলেটের। আবুল হাসান ৩০ এবং তাইজুল ১৬ রান করে অপরাজিত থাকেন।

ঢাকার পক্ষে শহিদ আফ্রিদি ৪টি এবং সুনিল নারিন ৩টি উইকেট নিয়েছেন। এছাড়া আবু হায়দার রনি নেন ২টি উইকেট।

সিলেট সিক্সার্স: নাসির হোসেন (অধিনায়ক), সাব্বির রহমান, নুরুল হাসান সোহান, আবুল হাসান রাজু, তাইজুল ইসলাম, মোহাম্মদ শরীফ, উপুল থারাঙ্গা, রস হুইটলি, দানুসকা গুনথিলাকা, ওয়ানিদু হাসারাঙ্গা, টিম ব্রেসনান।

ঢাকা ডায়নামাইটস: সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মোহাম্মদ শহীদ, আবু হায়দার রনি, জহরুল ইসলাম, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, শহিদ আফ্রিদি, এভিন লুইস, সুনিল নারিন, ক্যামেরন ডেলপোর্ট, কাইরন পোলার্ড।