Print
প্রচ্ছদ » জাতীয়

ঢাকা, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮:

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী ও মুকসুদপুর উপজেলার ৩৫ গ্রামে বিদ্যুৎ নেই বলে জানালেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

রোববার সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের মহিলা সংসদ সদস্য উম্মে রাজিয়া কাজলের প্রশ্নের উত্তরে একথা জানান তিনি।

নসরুল হামিদ জানান, গোপালগঞ্জে পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির মাধ্যমে চার হাজার ৭৩৫ কিলোমিটার বিতরণ লাইন নির্মাণ করা হয়েছে। এতে ৭৮৩টি গ্রাম পূর্ণাঙ্গ এবং ৮৫টি গ্রাম আংশিকভাবে বিদ্যুতায়িত করা সম্ভব হয়েছে।

তিনি জানান, টুঙ্গিপাড়া, কোটালিপাড়া ও সদর উপজেলা ইতোমধ্যে শতভাগ বিদ্যুতায়িত হয়েছে। কাশিয়ানী মার্চে ও মুকসুদপুর জুনের মধ্যে শতভাগ বিদ্যুতায়িত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আরেকটি প্রশ্নের উত্তরে প্রতিমন্ত্রী জানান, বর্তমান সরকারের দুই মেয়াদে এ পর্যন্ত মোট আট হাজার ৮১৯ মেগাওয়াট ক্ষমতার ৮৮টি বিদ্যুৎকেন্দ্র বাণিজ্যিকভাবে চালু হয়েছে।

এছাড়া ১৩ হাজার ৮১৩ মেগাওয়াট ক্ষমতার ৪৫টি তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণাধীন এবং চার হাজার ১৮০ মেগাওয়াট ক্ষমতার ১৯টি তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের দরপত্র প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।

শেয়ারনিউজ/