Print
প্রচ্ছদ » জাতীয়

ঢাকা, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮:

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) এর নির্দেশনায় ৩০ মিনিটের বেশি সময় বন্ধ ছিল মোবাইল ইন্টারনেট।

রোববার এসএসসির আইসিটি বিষয়ক পরীক্ষার শুরুর সময় প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে বন্ধ রাখা হয় মোবাইল ইন্টারনেট। তবে স্বাভাবিক ছিল ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের গতি।

বিভিন্ন মোবাইল অপারেটর ও বিটিআরসি সূত্রগুলো খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিটিআরসির একজন কর্মকর্তা জানান, রোববার পরীক্ষা শুরুর আগে সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ইন্টারনেট বন্ধ রাখতে মোবাইল অপারেটরগুলোকে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

গেলো কয়েক বছর ধরেই প্রশ্ন ফাঁস একটি আলোচিত বিষয়। নানা প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেয়ার পরও সামাজিক মাধ্যমে প্রশ্ন ফাঁস ঠেকানো যাচ্ছে না। অভিযোগ আছে ট্রেজারি থেকে প্রশ্ন কেন্দ্রে পাঠানোর সময় বা কেন্দ্র থেকেও ফাঁস হয় প্রশ্ন। আর এতে শিক্ষকদের একাংশের জড়িত থাকার অভিযোগও করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

চলতি বছর এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিন ১ ফেব্রুয়ারি বাংলা প্রথম পত্রের প্রশ্ন ফেসবুকে এসেছে পরীক্ষা শুরুর ২৪ মিনিট আগে। ৩ ফেব্রুয়ারি বাংলা দ্বিতীয় পত্রের প্রশ্ন এসেছে পরীক্ষা শুরুর পৌনে এক ঘণ্টা আগে। এভাবে এখন পর্যন্ত হওয়া প্রায় প্রতিটি প্রশ্নই পরীক্ষার আগে ফাঁস হয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, সরকারের বদনাম করতে এই কাজটি করছে একটি চক্র। এর পেছনে রাজনৈতিক কারণ জড়িত বলেও অভিযোগ তার।

এদিকে প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গত কয়েক দিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে শিক্ষক, কর্মকর্তা, পরীক্ষার্থী এবং অভিভাবককে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলাও হয়েছে বিভিন্ন স্থানে।

শেয়ারনিউজ/সূত্র: আরটিভি