Print
প্রচ্ছদ » জাতীয়




ঢাকা, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭:

খুলনার শিশু ফাউন্ডেশনের নির্বাচনে সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া ভোটকেন্দ্রে ভাঙচুর ও ব্যালট ছিনতাই হয়েছে।মঙ্গলবার রাতে নবনির্মিত জেলা স্টেডিয়ামের মূল ভবনে এ ঘটনা ঘটে।

শিশু ফাউন্ডেশনের নির্বাচনের আওয়ামী লীগ দলীয় দুইটি প্যানেলে ২০ জন করে মোট ৪০ জন প্রার্থী অংশ নেয়। খুলনা-২ আসনের সাংসদ মিজানুর রহমান ও সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম দুইটি প্যানেলের নেতৃত্বে ছিলেন।

রাত ১০টার দিকে ভোট গণনাকালে এক পক্ষের সমর্থকরা হামলা করে ব্যালট ছিনতাই করে। এসময় উভয়পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০জন আহত হয়।

সকাল থেকে নবনির্মিত জেলা স্টেডিয়ামের মূল ভবনে ভোট গ্রহণ চলছিল। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত স্টেডিয়াম এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। র‌্যাব, পুলিশসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছেন।

জেলা প্রশাসক আমিন উল আহসান ঢাকাটাইমসকে বলেন, বেশ কয়েকজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে ভোট গ্রহণের পর গণনা চলছিল। রাত ১০টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত এ ঘটনা ঘটিয়েছে। আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি।

‘আপাতত ভোট গণনা বন্ধ রয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানো হবে’, বলেন ডিসি।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ) আব্দুল্লাহ আরেফ বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে হামলাকারীদের ছত্রভঙ্গ করা হয়েছে। আমরা শক্ত অবস্থানে রয়েছি।