Print
প্রচ্ছদ » অর্থনীতি

ঢাকা, ০৭ জানুয়ারি ২০১৮:

২০১৭-১৮ অর্থবছরের ডিসেম্বর মাসে পণ্য রপ্তানিতে আয় হয়েছে ৩৩৫ কোটি ৩১ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার। যা গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ৮ দশমিক ৪২ শতাংশ বেশি। তবে ডিসেম্বর মাসে রপ্তানি আয়ের লক্ষমাত্রা অর্জন করতে পারেনি। আলোচ্য মাসে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১ দশমিক ৮৪ শতাংশ কম রপ্তানি আয় হয়েছে। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়েছে, ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জুলাই-ডিসেম্বর মেয়াদে রপ্তানিতে আয় হয়েছে ১ হাজার ৭৯১ কোটি ৬০ লাখ ২০ হাজার মার্কিন ডলার। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে দশমিক ২৩ শতাংশ বেশি। গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরের একই সময়ে পণ্য রপ্তানিতে বৈদেশিক মুদ্রা আয় হয়েছিল ১ হাজার ৬৭২ কোটি ১০ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার। অর্থাৎ গত অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসের চেয়ে চলতি অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে পণ্য রপ্তানিতে বৈদেশিক মুদ্রা আয় ৭ দশমিক ১৫ শতাংশ বেড়েছে।

চলতি অর্থবছরের শুধু ডিসেম্বরে বিভিন্ন খাতের রপ্তানিতে আয় হয়েছে ৩৩৫ কোটি ৩১ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার। এই মাসে রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৩৪১ কোটি ৬০ লাখ মার্কিন ডলার। অর্থাৎ এই মাসে লক্ষ্যমাত্রার ১ দশমিক ৮৪ শতাংশ কম বৈদেশিক মুদ্রা আয় হয়েছে। তবে গত অর্থবছরের ডিসেম্বরের চেয়ে রপ্তানি আয় বেড়েছে ৮ দশমিক ৪২ শতাংশ।

গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জুলাই-ডিসেম্বরের চেয়ে চলতি অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে হিমায়িত খাদ্য রপ্তানি আয় ৭ দশমিক ১৭ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া কৃষি পণ্য রপ্তানি ১৯ দশমিক ৮৪ শতাংশ, পাট ও পাটজাত পণ্য রপ্তানি ২১ দশমিক ৮৪ শতাংশ এবং হোম টেক্সটাইল পণ্য রপ্তানিতে ১৫ দশমিক ৬৫ শতাংশ বেড়েছে। তবে প্লাস্টিক পণ্য রপ্তানিতে আয় ২৭ দশমিক ৫১ শতাংশ, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য রপ্তানি ১ দশমিক ২১ শতাংশ কমেছে।

শেয়ারনিউজ/