Print
প্রচ্ছদ » অর্থনীতি

আবাসন খাতের সমস্য সমাধান করা হবে: এনবিআর চেয়ারম্যান




ঢাকা, ১১ নভেম্বর ২০১৭:

আবাসন শিল্প তথা রিয়েল এস্টেট খাতে রাজস্ব আদায় নিয়ে যে সমস্যা রয়েছে তা আগামীতে থাকবে না বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান।শনিবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর হোটেল পূর্বাণীতে রিহ্যাব ও এনবিআর’র যৌথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।


নজিবুর রহমান বলেন, আবাসন খাতে যে সমস্যা আছে তা সমাধানে রিহ্যাব ও এনবিআর যৌথভাবে কাজ করবে। এরইমধ্যে আবাসন খাতের বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করা হয়েছে। এমনকি সমস্যা সমাধানে রিহ্যাব-এনবিআর যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ হয়েও কাজ করবে। কেননা এক না হয়ে কোনো কাজ করলে তা সফল হয় না।


রিহ্যাব প্রেসিডেন্ট আলমগীর শামসুল বলেন, আবাসন খাতের জন্য সেকেন্ডারি বাজার ব্যবস্থার প্রয়োজন। আর এজন্য সেকেন্ডারি বাজারে রেজিস্ট্রেশন ব্যয় কমানো প্রয়োজন। এসময় তিনি সেকেন্ডারি বাজারে ৩ শতাংশ রেজিস্ট্রেশন খরচ করার প্রস্তাব করেন।


এছাড়া প্লট বিক্রয়ের জন্য এর মূল্য ক্রেতাদের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে আনতে রেজিস্ট্রেশন সংক্রান্ত ব্যয় ১৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে সাড়ে ৭ শতাংশ করারও আহ্বান জানান তিনি।


রিহ্যাবের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট নুরন্নবী চৌধুরী শাওন বলেন, ২০১০ সালের পর দেশের আবাসন শিল্প বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন। বিভিন্ন কর আরোপ ও সরকারের নীতি-সহায়তার অভাবে আবাসন খাত মারাত্মক ঝুঁকির মুখে। কর্মসংস্থানের বড় খাত হওয়া সত্ত্বেও গত চার-পাঁচ বছর ধরে কোম্পানিগুলো ভালো ব্যবসা করতে পারছে না। এছাড়া আর্থিক সরবরাহের অভাবে নির্মাণ কাজও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।


এসময় তিনি কিছু প্রস্তাব দেন। যার মধ্যে রয়েছে- আবাসন শিল্পে রেজিস্ট্রেশন ব্যয় ও গেইন ট্যাক্স কমানো, সেকেন্ডারি বাজার তৈরি, স্বল্প সুদে বিশেষ তহবিল গঠন ইত্যাদি।


আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন এনবিআর সদস্য ব্যারিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন, পারভেজ ইকবাল, রিহ্যাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট লিয়াকত আলী ভূঁইয়া প্রমুখ।




শেয়ারনিউজ/