Print
প্রচ্ছদ » অর্থনীতি

‘লক্ষ্যমাত্রার আগেই দেশ দারিদ্রমুক্ত হবে’: অর্থমন্ত্রী




ঢাকা, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭:

২০২৪ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে দারিদ্র্যমুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেন, ‘আমাদের টার্গেট ছিল ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে আর কোনো দরিদ্র লোক থাকবে না। আমরা আশা করছি ২০২৪ সালে সে অবস্থায় পৌঁছবো।’ আজশনিবার দুপুরে সিলেটে বেসরকারি সংস্থা সীমান্তিকের ৪০ বছর পদার্পণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।


মুহিত বলেন, ‘সব দেশেই দরিদ্র লোক থাকে। বাংলাদেশেও থাকবে। সাত শতাংশ মানুষ নানা কারণে রাষ্ট্রের ওপর নির্ভর থাকে। মালয়েশিয়া তাদের দেশকে দারিদ্র্যমুক্ত করে রাষ্ট্রের ওপর নির্ভরশীলতার হার সাত শতাংশে নিয়ে এসেছে। যদিও বাংলাদেশ মালয়েশিয়ার মতো অর্থনৈতিকভাবে সাবলম্বী নয় তবুও বাংলাদেশ তা পারবে।’


সরকার গ্রাম ও শহরের মানুষের জীবনযাত্রার পার্থক্য কমিয়ে আনতে কাজ করছে জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘প্রত্যন্ত অঞ্চলে শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবাসহ উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে সরকার। দেশের ৬০-৭০ শতাংশ এলাকা এখন উন্নত। এটা কোনো মতেই সম্ভব হতো না যদি না সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম শহরের বাইরে গ্রামে সেটা বিস্তৃত করতে না পারতাম।’


২০১৮ সালের মধ্যে দেশের সব এলাকা বিদুৎতায়ন হবে জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী দুই বছরের মধ্যে দেশেরর সর্বত্র বিদ্যুতায়ন করা সম্ভব হবে। যদিও আমাদের টার্গেট ছিল ২০২৪ সাল।’সময়ের আগে সরকার সব পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করছে বলেও জানান মুহিত।


অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ মেডিকেল রিচার্স সেন্টারের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মুদাচ্ছের আলী, সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী, সীমান্তিকের প্রতিষ্ঠাতা আহমদ আল কবির, সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ মোর্শেদ আহমদ চৌধুরী প্রমুখ।





শেয়ারনিউজ/এআর