Print
প্রচ্ছদ » শেয়ারবাজার

মার্কেট মুভারের ভূমিকায় বস্ত্র ও প্রকৌশল খাত

ঢাকা, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭:

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বৃহস্পতিবার মার্কেট মুভারের ভূমিকায় দেখা গেছে বস্ত্র ও প্রকৌশল খাতকে। যদিও এই দিনেও ব্যাংকিং খাতকে ঘিরে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে। কিন্তু এদিন ব্যাংকিং খাতের ৭০ শতাংশ কোম্পানির দর পতন হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার দিনশেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে ব্যাংকিং খাতের ৩০টি কোম্পানির উপর ভিত্তি করে লেনদেন হয়েছে ৮০ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। এসময় এখাতের লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৬টির বা ২০ শতাংশের, দর কমেছে ২১টির বা ৭০ শতাংশের।৩টি কোম্পানির শেয়ার দর ছিল অপরিবর্তিত।

এদিন খাত ভিত্তিক লেনদেনে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল বস্ত্র খাত। সম্প্রতিক সময়ে বিনিয়োগকারীদের সক্রিয়তায় ক্রম ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে বস্ত্র খাত। বৃহস্পতিবার বস্ত্র খাতের ৭২ কোটি ১২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এসময় এখাতের ১৬ বা ৩৪.৭৮ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে, কমেছে ৫৬.৫২ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের দর।

এদিকে, ৬৮ কোটি ৯৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে প্রকৌশল খাতে। এখাতের কোম্পানিগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৪৫.৭১ শতাংশের, দর কমেছে ৫৪.২৯ শতাংশের।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ইয়ার ইন্ডের অপেক্ষায় আছে ব্যাংকিং খাত। তাই মৌলভিত্তির ব্যাংকগুলোর শেয়ার ইতিবাচক থাকলেও নড়বড়ে রয়েছে যেসকল ব্যাংকের প্রভেশনিং ঘাটতি ও মুনাফার পরিবর্তন আসতে পারে এমন কোম্পানির।

তবে, বস্ত্র ও প্রকৌশল খাতের প্রতি বিনিয়োগকারীদের বাড়তি আগ্রহ রয়েছে। কেননা, বস্ত্র খাতের কোম্পানিগুলোতে আসছে বিদেশী বিনিয়োগের প্রস্তাব। অন্যদিকে, রাজনৈতিক অঙ্গনে স্থিতিশীলতা থাকায় প্রকৌশল খাতের কোম্পানিগুলোর ব্যবসাও ভাল হচ্ছে।

শেয়ারনিউজ/